Thursday , September 29 2022

BCS preparation in easy way General knowledge | সাধারণ বিজ্ঞান বই হতে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন একনজরে part-1

BCS preparation in easy way General knowledge

৯ম-১০ম শ্রেনীর সাধারণ বিজ্ঞান বই হতে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন একনজরে। ১-৪ অধ্যয়

 

আপডেট জব Update Job আপনাদের পাশে থেকে আপনাদের সুন্দর ক্যরিয়ার গড়তে সহায়তা করে যাচ্ছে। বি সি এস এর সকল প্রস্তুতই Update Job website: https://updatejob.net   এ পাবেন। আপনাদের বিসিএস প্রিলি প্রস্তুতির জন্যে সাধারণ বিজ্ঞান খুব গুরুত্বপূর্ণ ও জটিল একটি অধ্যায় । তাই আপনাদের সুবিধার্থে ৯ম ১০ম শ্রেনীর পাঠ্যবই থেকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রশ্ন আপনাদের জন্যে দেওয়া হল। বিসিএস থেকে শুরু করে যেকোনো সরকারি জবের জন্য ৯ম-১০ম শ্রেনীর সাধারণ বিজ্ঞান বই হতে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন একনজরে BCS preparation in easy way General knowledge

BCS preparation in easy way General knowledge


♦১ম অধ্যায়ঃ

BCS preparation in easy way General knowledge

১।প্রাণীদেহে শুষ্ক ওজনের কতভাগ প্রোটিন – ৫০%।

২।খাদ্যের উপাদান – ৬টি।

৩।আমিষের গঠনের একক – অ্যামাইনো এসিড।

৪।মানবদেহে কয়ধরনের অ্যামাইনো এসিড রয়েছে – ২০ ধরনের♦

৫।মানুষের প্রধান খাদ্য – শর্করা।

৬।পানিতে দ্রবনীয় ভিটামিন – B,C♦

৭।ঢেকি ছাটা চাল ও আটার ভিটামিন থাকে – থায়ামিন।

৮।দৈনিক পানি পান করা উচিত – ২-৩ লিটার♦

৯।ব্রাইন বলা হয় – লবনের দ্রবনকে।

১০।পুষ্টির ইংরেজী শব্দ – Nutrition।

১১।কোষ গঠনে সাহায্য ও নিয়ন্ত্রন করে – ভিটামিন ই ও লাইসিন।

১২।কার্বোহাইড্রেট C:H:O এর অনুপাত – ১:২:১

১৩।খাদ্যের কোন উপাদানটি মিষ্টি স্বাদযুক্ত – শর্করা।

১৪।FRUIT SUGAR বলা হয় – ফ্রুকটোজকে।

১৫। আমিষের শতকরা নাইট্রোজেন পরিমান – ১৬%

১৬। আমিষের মৌলিক উপাদান কয়টি – ৪টি♦

১৭।ইলিশের প্রোটিন আছে – ২০

১৮।মাছ থেকে কতভাগ প্রোটিন আসে – ৮০ ভাগ।

১৯।আমিষের অভাবে হয় – ম্যারাসমাস রোগ।

২০।মহিষের দুধে শক্তির পরিমান – ১১৭ ক্যালরী।

২১।শক্তি উৎপাদক খাদ্য – শর্করা।

২২।ভিটামিন এভাবে রোগ – রাতকানা, জেরপথ্যালমিয়া

২৩।খাদ্যে ফ্যাটি এসিড পাওয়া যায় – ২০ ধরনের

২৪।ভিটামিন বি – ২০ প্রকার।

২৫।প্রাপ্ত বয়স্ক লোকের লৌহের প্রয়োজন – ৯গ্রাম

২৬।খাদ্যের মধ্যে নিহিত শক্তির একক – কিলোক্যালরী।

২৭।Quetelet Index বলা হয় – BMI

২৮।BMI- Body Mass index

২৯।দেহের চর্বি পরিমান নিদের্শক – BMI

৩০।BMI- ওজন/(উচ্চতা)^২

৩১।BMIএর অপর নাম – QLI ♦

৩২।বোরহানিতে পাওয়া যায় – ল্যাকটিক এসিড♦

৩৩।ভিনেগার কী – অ্যাসেটিক এসিডের ৫% দ্রবন।

৩৪।তামাকে কোন পদার্থ থাকে – নিকোটিন, ক্যাফেইন।

৩৫।ধূমপান করার উপাদানটি নাম – Nicotina

৩৬।সর্বপ্রথম এইডস চিহ্নিত হয় – আফ্রিকায়।

৩৭।পরিপোষক ইংরেজী শব্দ – Nutrients

৩৮।উৎপত্তিগত আমিষ – ২ প্রকার

৩৯।মানবদেহে ওজনের মোট ক্যালসিয়াম – ২ভাগ

৪০।মানবদেহে ওজনের মোট পানি – ৬০ থেকে ৭৫ভাগ।

৪১।মানবদেহে ফসফরাসের প্রয়োজন – ৫গ্রাম

৪২।এসিডোমিস হয় – পানির অভাবে

৪৩।মানুষের মৃত্যু হয় – ১০% পানির অভাবে

৪৪।মানবদেহের বৃদ্ধির সময়সীমা – ২০ থেকে ২৪ বছর।

৪৫।পুষ্টি – ৪ প্রকার। ৪৬।এইডসের ভাইরাসের নাম – HIV♦

৪৭।এ পযর্ন্ত অ্যামোইনো এসিডের সন্ধান পাওয়া গেছে – ২০ ধরনের♥

৪৮।খাদ্যে ফ্যাটি এসিড পাওয়া যায় – ২০ ৪৯।স্নেহ – ২ প্রকার।

৫০।বিজ্ঞান শব্দের অর্থ – বিশেষ জ্ঞান

৫১।স্নেহে দ্রবনীয় – ভিটামিন A,D,E,K♦♥♦

৫২।ফল পাকানোর জন্য দায়ী – ক্যালসিয়াম কার্বোইড।

৫৩।HIV অাক্রমন করে – রক্তে শ্বেতকনিকায় লিম্ফোসাইটকে।

৫৪।আমাশয় – ২ প্রকার।এমিবিক ও ব্যাসিলারি।

৫৫।ভাইরাস – প্রকৃত পরজীবী।

৫৬।ভাইরাসকে বলা হয় – অকোষীয় জীব।

৫৭।ছত্রাকে বলা হয় – মৃতজীবী জীব।

৫৮।অনুজীবকে বলা হয় -আদিজীব।

৫৯।প্রথম ব্যাকটেরিয়া দেখতে পান – বিজ্ঞানী অ্যান্টনি ফন লিউয়েন হুক♦

৬০।ধূমপানের উপাদানটির বিজ্ঞানিক নাম – Nicotiana Tabacum।

♦♦২য় অধ্যায়ঃ

BCS preparation in easy way General knowledge

১।পানির ঘনত্ব নির্ভরশীল – তাপমাত্রা উপর।

২।ভূ-পৃষ্টের মোট পানির শতকরা মিঠাপানি – ১ ভাগ।

৩।পানির ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি – ৪ ডিগ্রী সে:♦♥

৪।বিশুদ্ধ পানির ধর্ম – স্বাদহীন,বর্ণহীন,গন্ধহীন।

৫।কোন জলীয় দ্রবণ এসিডীয় হলে এর pH – ৬.৫।

৬।বিশুদ্ধ পানির pH – ৭♦ ৭।শুধু পানিতে জন্মায় – সিংগারা।

৮।ওষুধ তৈরিতে পানি বিশুদ্ধ করা হয় – পাতন প্রক্রিয়ায়।

৯।এসিডের পরিমান বাড়লে pH এর মান – কমে।

১০।ব্লিচিং পাউডারের সংকেত – Ca(OC1)C1♦

১১।আমেরিকায় উত্তর ওহাইও অঙ্গরাজ্যের মরা হ্রদটি নাম – এরি।

১২।রামসার চুক্তি হয় – ১৯৭১ সালে♦

১৩।রামসায় কনভেনশন সংশোধন হয় – ১৯৮২ সালে।

১৪।গঙ্গা পানি বন্টন চুক্তি হয় – ১৯৭৭ সালে।

১৫।বুড়িগঙ্গা নদীর সাথে তুলনা করা হয় – এরি হ্রদের সাথে।

১৬।পানির স্ফুটনাঙ্ক – ৯৯.৯৮ ডিগ্রী সে:।

১৭।সমুদ্রের পানিকে বলে – Marine Water♦

১৮।পানির অনুতে আছে – ২টি হাইড্রোজেন।

১৯।পৃথিবীর পানির মধ্যে শতকরা সমুদ্রের পানি – ৯০ ভাগ।

২০।পানির দ্রবীভূত অক্সিজেন মাত্রা ঠিক থাকে – সালোকসংশ্লেষনের মাধ্যমে।

২১।নদনদীর পানি – ক্ষারীয়।

২২।একলিটার বিশুদ্ধ পানির pH – ৭

২৩।ত্বক ও ফুসফুসে ক্যান্সার সৃষ্টি করে – পারদ/U।

২৪।রক্ত শূন্যতা হয় – সীসার অভাবে♦

২৫।রামসায় চুক্তিতে বাংলাদেশ সম্মতি জ্ঞাপন ও স্বাক্ষর করে – ১৯৭৩ সালে♦

২৬।লোনা পানির ইংরেজী শব্দ – Saline Water।

২৭।নাব্যতা হ্রাসকালে ভূমিকা আছে – তেল।

২৮।pH কমলে প্রাণীদেহে হতে নিগৃত হয় – Ca।

২৯।ইলিশ মিঠা পানিতে আসে – প্রজনেন জন্য♦

৩০।ইলিশ ডিম নষ্ট করে – লবণাক্ত পানিতে।

৩১।ভূ-গর্ভস্থ শতকরা লবণাক্ত পানির পরিমান – ৯৭ ভাগ।

৩২।বন্যার সময় পানি বিশুদ্ধকরন করার জন্য ব্যবহার করা হয় – সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইড।

৩৩।পানির মধ্যে ধূলিকনা পৃথক করার প্রক্রিয়া – পরিস্রাবন। ৩৪।খাওয়ার পানির জন্য সহজলভ্য প্রক্রিয়া – স্ফুটন।

৩৫।কঠিন বর্জ্য পঁচতে সময় লাগে – ১ থেকে ২ দিন।

৩৬।সম্প্রতি তেজস্ক্রিয়া ঘটেছে – জাপানের ফুকুশিমা।

৩৭।মানুষ বিকলাঙ্গ হয় – পারদের অভাবে।

৩৮।এরি হ্রদকে মরা হ্রদ ঘোষণা করা হয় – ১৯৬০ সালে।

৩৯।প্রাণীশূন্য নদীকে বলে – Dead Lake♦

৪০।ETP – Effluent Treatment Plant♦

৪১।ঢাকা শহরে প্রতিনিয়ত কঠিন পদার্থ উৎপন্ন হয় – ৫০০ মে: টন।

৪২।বাংলাদেশ ভারত হতে গঙ্গা পানির ন্যায্য হিসাবে পাওয়ার চুক্তি হয় – ১৯৯৬ সালে♦

৪৩।ভারত সরকার গঙ্গা পানির গতিপথ পরিবর্তন করে – ১৯৭৫ সালে।

৪৪।মানুষের মৌলিক অধিকার – ৫টি।(আমরা জানি, মৌলিক অধিকার ৬টি।কিন্তু ৯ম শ্রেনীর বইয়ে ৫ টি।আবার ৩য় শ্রেনীর বইয়ে ৬টি)♦

৪৫।রামসার কনভেনশন সংশোধন হয় – ২ বার

৪৬।অম্লীয় পানির pH – ৪

৪৭।বরফের গলনাঙ্ক – ০ ডিগ্রী সে:। ৪৮।১ কিউসেক পানির ভর – ১০০০ কেজি

৪৯।পানির অনুর আকৃতি – কৌণিক।

৫০।পানি একটি – উভধর্মী পদার্থ।

#৩য় অধ্যায়ঃ

BCS preparation in easy way General knowledge

১।রক্তে লোহিত কণিকা সঞ্চিত থাকে – প্লীহাতে♦

২।অনুচক্রিকার গড় আয়ু – ৫ থেকে ১০ দিন। লোহিত রক্ত কণিকায় গড় আয়ু – ১২০ দিন♦ শ্বেতকণিকার গড় আয়ু – ১-১৫ দিন♦

৩।লোহিত কণিকার আকৃতি – চ্যাপ্টা।

৪।সর্বজন দাতা গ্রুপ – O+ গ্রুপ।

৫।রক্তে অ্যান্টিজেন নেই – O+ গ্রুপে।

৬।হৃৎপিন্ডের আকৃতি – ত্রিকোণাকার।

৭।রক্তে কিসের পরিমান বেশি থাকা শরীরে জন্য উপকারি – HDL

৮।রক্তে কোলেস্টেরল স্বাভাবিক পরিমান – ১০০-২০০mg/dl।

৯।মানুষের স্বাভাবিক রক্তচাপ -১২০/৮০ mmHg

১০।মানুষের মোট ওজন শতকরা – ৮% রক্ত।

১১।ধমনির রক্তের pH – ৭.৪। ১২।পূর্ণবয়স্ক মানুষের রক্তের পরিমান – ৫-৬ লিটার

১৩।রক্ত গঠিত – যোজক টিস্যু।

১৪।রক্তের প্রধান উপাদান – লৌহ।

১৫।রক্তের প্রধান উপাদান – ২টি।

১৬।রক্তে রেচন পদার্থ – ইউরিয়া♦

১৭।রক্ত লাল দেখায় – হিমোগ্লোবিন থাকায়।

১৮।দেহের প্রহরী – শ্বেতকণা।

১৯।রক্তে লিম্ফোসাইটের পরিমান – ২০-৪৫% ২০।হিমোগ্লোবিন থাকে না – শ্বেতকণিকায়

২১।রক্তে অ্যান্টিজেন থাকে – ২টি।

২২।AB গ্রুপে রক্তের মানুষ – ৩%।

২৩।হৃৎপিন্ড বেষ্টনকারী পদার্থের নাম – পেরিকার্ডিয়াম (২ স্তর)।

২৪।নিলয়ের অপর নাম – ভেন্টিকল♦

২৫।একটি হৃৎস্পন্দনের সময় লাগে ০.৮ সেকেন্ড।

২৬।হৃৎপিন্ড প্রসারণকে বলা হয় – ডায়াস্টোল♦

২৭।প্রতিমিনিটে হার্টবিটকে বলে – ডাব।

২৮।কার্ডিয়াক চক্রের ধাপ – ৪টি♦

২৯।LDL এর পূর্ণরুপ -Low Density Lipoprotein।

৩০।সমগ্র রক্তে -৫৫% রক্তরস, ৪৫% রক্তকণিকা।

৩১।রক্তের তরল অংশকে বলে – প্লাজমা। ৩২।রক্ত কণিকা – ৩ প্রকার♦

৩৩।রক্ত রসের -১০% জৈব ও অজৈব।

৩৪।রক্তরস আলাদা করলে রক্তের রং হবে – হালকা হলুদ।

৩৫।প্লেটলেট অর্থ – অণুচক্রিকা♦

৩৬।ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হলে কোন অবস্থার সৃষ্টি হয় – পারপুরা।

৩৭।মানুষের রক্তের A গ্রুপ শতকরা – ৪২%।

৩৮।মানুষের রক্তের B গ্রুপ শতকরা – ৯%।

৩৯।মানুষের রক্তের AB গ্রুপ শতকরা – ৩%।

৪০।মানুষের রক্তের O+ গ্রুপ শতকরা – ৪৬%।

৪১।RBC – Red Blood cell। ৪২।রেসাস ফ্যাক্টরের সংকেত – Rh♦

৪৩।রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে – ডা. কার্ল ল্যান্ডস্টেইনার (১৯০০ সালে)♦

৪৪।Rh ফ্যাক্টরের নামকরন করা হয় – বানর দ্বারা।

৪৫।হৃৎপিন্ডের অবস্থান – দুই ফুসফুসের মাঝে।

৪৬।হৃৎপিন্ডের ওজন – ৩০০ গ্রাম♦

৪৭।হৃৎপিন্ডের সংকোচনকে বলা হয় – সিস্টোল।

৪৮।মানুষের হৃৎপিন্ড প্রকোষ্ঠ – ৪ ভাগে♦

৪৯।রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা – ৮০ থেকে ১২০ গ্রাম/ডেসি.লিটার।

৫০।HDL এর পূর্ণরুপ -High Density Lipoprotein

৪র্থ অধ্যায়ঃ

BCS preparation in easy way General knowledge

১।বয়:সন্ধিকালের সময়কাল – ১১ হতে ১৯ বছর।

২।টেস্টটিউবের প্রথম সফলতা পায় -ড.প্যাট্রিক♦ স্টেপটো ও ড. রবার্ট এডওয়ার্ডের, ইংল্যান্ড। ১৯৭৮ সালে ২৫ জুলাই ১১.৫৭ মিনিটে লুইস জয় ব্রাউন নামের এক বেবি।

৩।শৈশবকাল বলা হয় – ৫ বছর পর্যন্ত♦

৪।মানুষের শরীরে বিভিন্ন পরিবর্তনের জন্য দায়ী – ২টি।

৫।ছেলেদের শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তনের জন্য দায়ী – টেস্টোস্টেরন♦ #মেয়েদের শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তনের জন্য দায়ী – ইস্ট্রোজেন ও প্রজেস্টেরন♦

৬।প্রথম টেস্টিটিউব বেবি উদ্ভাবন করন – পেট্রুসি(১৯৫৯ সালে,ইটালিতে)।

৭।লিঙ্গ নির্ধারক ক্রোমোজোম সংখ্যা – ১ জোড়া♦

৮।স্ত্রী লিঙ্গ নির্ধারক ক্রোমোজোম সংখ্যা – XX♦ পুরুষের লিঙ্গ নির্ধারক ক্রোমোজোম সংখ্যা -XY♦

৯।মানব কোষে ক্রোমোজোম সংখ্যা – ২৩ জোড়া♦

১০।পৃথিবীর উৎপত্তি ও জীনের উৎপত্তি ঘটনা প্রবাহকে বলে – রাসায়নিক বিবর্তন♦

১১।সর্বপ্রথম জীনের উৎপত্তি – সমুদ্রের পানিতে♦

১২।সংযোগকারী জীব বলা হয় – প্লাটিপাস (সরীসৃপ ও স্তন্যপায়ী প্রাণির মধ্যে)।

১৩।বয়:সন্ধিকালে কোন হরমোন প্রভাব নেই ইনসুলিন♦

১৪।বয়:সন্ধিকালে পরিবর্তনের জন্য দায়ী – হরমোন।

১৫।বয়:সন্ধিকালে পরিবর্তন প্রধানত – ৩ প্রকার।

১৬।সর্বপ্রথম জন্ম নেয়া টেস্টিটিউব বেবি বাঁচে – ২৯ দিন।(জন্ম প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ইটালির বিজ্ঞানী ড.পেট্রুসি,১৯৫৯ সালে।)

BCS preparation in easy way General knowledge

১৭।বাংলাদেশের জন্ম নেয়া প্রথম ৩টি টেস্টিটিউব বেবির নাম – হিরা,মনি ও মুক্তা (২০০১ সালে)।

১৮।মানুষের অটোসোম – ৪৪ টি♦

১৯।জীবাশ্ম আবিষ্কার করে – জেনোফেন♦

২০।নিউক্লিক এসিড সৃষ্টিতে ভূমিকা রয়েছে – অতি বেগুনি রশ্মি♦

২১।পৃথিবী একটি জ্বলন্ত গ্যাসপিন্ড ছিল – ৪৫০ কোটি বছর।

২২।সর্বপ্রথম কে “ইভোলিউশন” শব্দটি ব্যবহার করেন – হার্বাট স্পেনসার♦

২৩।প্রাণ সৃষ্টিতে শুরুতে সর্বপ্রথম যৌগটি তৈরি হয় – অ্যামাইনো এসিড।

২৪।সময়ের সাথে নতুন প্রজাতির সৃষ্টিকে বলে – জৈব বিবর্তন।

২৫।অসম্পূর্ণ বিভক্ত নিলয় থাকে – সরীসৃপের।

২৬।উভচরের (ব্যাঙ) হৃৎপিন্ড প্রকোষ্ঠের সংখ্যা – ৩। পাখির হৃৎপিন্ড প্রকোষ্ঠের সংখ্যা – ৪♦

২৭।মানবদেহে লুপ্তপ্রায় অঙ্গটি – ককসিস।

২৮।”বায়োলজি” শব্দের প্রতিষ্ঠাতা” – ল্যামার্ক♦

২৯।বংশগতির মতবাদ দেন – মেন্ডেল♦ বংশগতির বিদ্যার জনক – গ্রেগর জোহান মেন্ডেল।

৩০।মানবদেহে নিষ্কিয় অঙ্গটি – অ্যাপেন্ডিক্স।

৩১।”Origin of species by meanse of natural selection” বইটির লেখক – চালর্স ডারউইন (১৮৫৯ সালে)♦ (জন্ম -১৮০৯ সালে, ইংল্যান্ড সাসবেরি এবং মৃত্যু-১৮৮২ সালে)।

৩২।স্যামন মাছ প্রজননের ঋতুতে ডিম পাড়ে – ৩ কোটি।

৩৩।”ফিলোসোফিক জুওলজিক” বইটির লেখক – ল্যামার্ক (১৮০৯ সালে)♦

৩৪।”প্রাকৃতিক নির্বাচনে দায় প্রজাতির উদ্ভব” – গ্রন্থেরটি লেখক – চালর্স ডারউইন♦

৩৫।ভাইরাস সৃষ্টি হয় – প্রোটোজোয়া থেকে♦

৩৬।জৈব বিবর্তনের জনক – চার্লস ডারউইন।

৩৭।পৃথিবীর উদ্ভিদ প্রজাতির সংখ্যা – প্রায় ৪ লাখ।

৩৮।তিমি সাতাঁরে জন্য ব্যবহার করে – ফ্লিপার।

৩৯।”অনটোজেনি রিপিটস ফাইলোজেনি” কার ভাষ্য – হেকেল।

৪০।একটি সরিষা গাছ হতে বছরে বীজ জন্মায় – ৭,৩০,০০০। এক জোড়া হাতির থেকে উদ্ভূত সবগুলো হাতি বেঁচে থাকলে ৭৫০ বছরে হাতির সংখ্যা হবে ১ কোটি ৯০ লাখ।

♦♦♦

আপনাদের সুন্দর ক্যারিয়ার গড়ার জন্যে আমরা আপনাদের পাশে আছি থাকব। এছাড়াও সকল ধরনের চাকরির সার্কুলার পাবেন আপডেট জব সাইটে। Govt Job Private Job Bank Job NGO job সহ সকল ধরনের চাকরির তথ্য পাবেন আপডেট জব সাইটে । শেয়ার করে আমাদের পাশে থাকার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

BCS preparation in easy way General knowledge

 

 

About UpdateJob

Check Also

BCS Preparation | স্বপ্ন যখন বিসিএস | Dream Job BCS 2022 Join Now

স্বপ্নবিষ্ট তরুণ-তরুণীর আরাধ্য স্বপ্ন বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (BCS) এর ক্যাডার হওয়া। এর জন্য প্রতিটি চাকরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.